February 25, 2024

পরিবার কল্যাণ সহকারীর কাজ কি: ১৫ টি কাজ, বেতন-ভাতা, পদোন্নতি ও অন্যান্য সুবিধাদি।

পরিবার কল্যাণ সহকারীর কাজ কি
পরিবার কল্যাণ সহকারীর কাজ কি

পরিবার কল্যাণ সহকারীর কাজ কি/পরিবার কল্যাণ সহকারী এর কাজ কি

  1. বাড়ি বাড়ি গিয়ে অর্থাৎ মাঠ পর্যায়ে গিয়ে সক্ষম দম্পত্তি রেজিস্ট্রেশন করা।
  2. রেজিস্ট্রেশন এর তথ্য নির্দিষ্ট রেজিস্ট্রেশন খাতাতে লিপিবদ্ধ করা।
  3. দম্পতিদের মাঝে পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতি নিতে উৎসাহ প্রদান করা।
  4. অধিক জনসংখ্যার কুফল এবং বেশি সন্তান থাকলে যেসব সমস্যা হয় তা জানিয়ে পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতি নিতে অনুপ্রেরণা দেয়া।
  5. যদি কেউ স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র আসে তবে তাকে সেবা প্রদান করা।
  6. গর্ভবতীদের তথ্য রেজিস্ট্রেশন করা।
  7. গর্ভকালীন যদি কোন ধরনের সেবা গ্রহণ করতে আসে তাহলে অবশ্যই তাদেরকে সেবা প্রদান করা।
  8. নিরাপদ প্রসব সেবা প্রদান করা।
  9. প্রসব পরবর্তী কি কি ধরনের নিয়মকানুন মেনে চলতে হবে তা যদি জানিয়ে দেওয়া।
  10. তাছাড়া শিশু জন্মগ্রহণ করার পর তাদেরকে স্বাস্থ্য সুরক্ষা প্রদান করার পাশাপাশি তাদের পুষ্টি নিশ্চিত করা।
  11. বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন খাওয়ানোর বিষয় এ সঠিক তথ্য প্রদান করা।
  12. শিশুদের টিকা দান কর্মসূচির জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সঙ্গে যোগাযোগ করে টিকা দান কর্মসূচির আয়োজন করা।
  13. ই -রেজিষ্ট্রেশন।
  14. গর্ভ কালীন সেবা দান।
  15. প্রসোবোত্তর সেবা ।
  16. নিরাপদ প্রসব সেবা ।
  17. প্রসব পরবর্তী সেবা,
  18. খাবার বড়ি,কনডম,ইনজেকটেবলের ডিও ডোজ প্রদান, মিসোপোষ্টল বিতরন।
  19.  জন্ম রেজিষ্টেশন।
  20. মৃত্যুর তালিকা প্রদান, ও রেজিষ্ট্রেশান।
  21. কমিউনিটি কেন্দ্রে সেবা প্রদান ।
  22. কেভিড-১৯ টিকা প্ৰদান ।
  23. হাম রুবেলাতে টিকা প্রদান ।
  24. স্যাটেলাইট ক্লিনিকে সেবা প্রদান।
  25. মাতৃ মৃত্যু রোধ এ কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া।
  26. জনসংখ্যা গণনা করা।

পরিবার কল্যাণ সহকারীর গ্রেড কত/পরিবার কল্যাণ সহকারী কততম গ্রেড

১৭ তম গ্রেড (৯০০০-২১,৮০০/-) এ পরিবার কল্যাণ সহকারীরা নিয়োগ পেয়ে থাকেন। আগের চাকরি শ্রেণি হিসেবে একে চতুর্থ শ্রেণির চাকরি হিসেবে গণ্য করা হয়।

পরিবার কল্যাণ সহকারীর পদোন্নতি
পরিবার কল্যাণ সহকারীর কাজ কি

পরিবার কল্যাণ সহকারীর বেতন কত/পরিবার কল্যাণ সহকারী বেতন কত?

পরিবার কল্যাণ সহকারীরা যেহেতু ১৭ তম গ্রেডে জয়েন করে সেহেতু তাদের মূল বেতন দেয়া হয় ৯০০০/- টাকা। প্রতি বছর মূলবেতন বৃদ্ধি পায় ৫%। প্রতি বছর জুলাই মাসে বেতন বৃুদ্ধি পায়। অঞ্চলভেদে বেতন ভিন্ন হয়ে থাকে।

চাকরি শুরুর সময় মূলবেতন হলো ৯০০০ টাকা।

১ বছর পর ৫% বৃদ্ধি পেলে তা হবে: ৯০০০+ (৯০০০×৫%)=৯৪৫০/- টাকা

২ বছর পর ৫% বৃদ্ধি পেলে তা হবে: ৯৪৫০+ (৯৪৫০×৫%)=৯৯২২/- টাকা

মূলবেতন বৃদ্ধির সাথে সাথে বাড়িভাড়াও বৃদ্ধি পাবে

ঢাকা সিটি কর্পোরেশন এ বেতন:

মূল বেতন: ৯,০০০/- টাকা

বাড়ি ভাড়া: মূলবেতনের ৬৫%= ৯০০০×৬৫%=৫৮৫০/- টাকা

চিকিৎসা ভাতা: ১৫০০/- টাকা

টিফিন ভাতা: ২০০/- টাকা

যাতায়াত ভাতা: ৩০০/- টাকা

শিক্ষা সহায়ক ভাতা: ৫০০/- টাকা ( প্রতি সন্তান) সর্বোচ্চ ২ জন (১০০০ টাকা)

তাহলে প্রতিমাসে বেতন:

৯০০০+৫৮৫০+১৫০০+২০০+৩০০+১০০০=১৭,৮৫০/- টাকা

অন্যান্য সিটি কর্পোরেশন ও সাভার পৌর এলাকাতে বেতন:

মূল বেতন: ৯০০০/- টাকা

বাড়ি ভাড়া: মূলবেতনের ৫৫%= ৯০০০×৫৫%=৪৯৫০/- টাকা

চিকিৎসা ভাতা: ১৫০০/- টাকা

টিফিন ভাতা: ২০০/- টাকা

যাতায়াত ভাতা: ৩০০/- টাকা

শিক্ষা সহায়ক ভাতা: ৫০০/- টাকা ( প্রতি সন্তান) সর্বোচ্চ ২ জন (১০০০ টাকা)

তাহলে প্রতিমাসে বেতন:

৯০০০+৪৯৫০+১৫০০+২০০+৩০০+১০০০=১৬,৯৫০/- টাকা

জেলা শহরে বেতন:

মূল বেতন: ৯০০০/- টাকা

বাড়ি ভাড়া: মূলবেতনের ৫০%= ৯০০০×৫০%=৪৫০০/- টাকা

চিকিৎসা ভাতা: ১৫০০/- টাকা

টিফিন ভাতা: ২০০/- টাকা

যাতায়াত ভাতা: ৩০০/- টাকা

শিক্ষা সহায়ক ভাতা: ৫০০/- টাকা ( প্রতি সন্তান) সর্বোচ্চ ২ জন (১০০০ টাকা)

তাহলে প্রতি মাসে বেতন:

৯০০০+৪৫০০+১৫০০+২০০+৩০০+১০০০=১৬,৫০০/- টাকা

পরিবার কল্যাণ সহকারীর গ্রেড কত/পরিবার কল্যাণ সহকারী কততম গ্রেড
পরিবার কল্যাণ সহকারীর কাজ কি

অবসরকালীন ভাতা:

অবসরে যাওয়ার পর ৩ টি ভাতা পাওয়া যায়:

১. মাসিক পেনশন।

২. ল্যামগ্রান্ট।

৩. এককালীন আনুতোষিক 

পরিবার কল্যাণ সহকারীর পেনশন কত:

অবসরে যাওয়ার পর আপনি প্রতি মাসে যে টাকা পাবেন সেটাই পেনশন।

পেনশন নির্ধারণের পদ্ধতিঃ

সূত্র: সর্বশেষ মূলবেতন x সর্বমোট চাকরির জন্য পেনশনের নির্ধারিত হার (%) ÷ ২ = মোট টাকা।

পেনশনের হারঃ

চাকরিকাল ৫ বছর হলে ২১%, পেনশন প্রাপ্ত হবেন।

চাকরিকাল ১০ বছর হলে ৩৬% পেনশন প্রাপ্ত হবেন।

চাকরিকাল ১৫ বছর হলে ৫৪% পেনশন প্রাপ্ত হবেন।

চাকরিকাল ২০ বছর হলে ৭২% পেনশন প্রাপ্ত হবেন।

চাকরিকাল ২৫ বছর হলে ৯০% পেনশন প্রাপ্ত হবেন।

উদাহরণ-

আপনি ‍যদি ২৫ বছরের বেশি সময় চাকরি করেন এবং বিনা বেতনে কোন ছুটি ভোগ না করে থাকেন এবং আপনার সর্বশেষ মূল বেতন ৪০,০০০ টাকা হয় তাহলে পেনশন পাবেন:

(৪০০০০×৯০%)÷২=১৮,০০০/- টাকা

ল্যামগ্রান্ট:

ল্যামগ্রান্ট হিসাব নির্ধারণের পদ্ধতিঃ

সূত্র: চাকরিতে সর্বশেষ মূলবেতন x চাকরিতে অর্জিত ছুটি (সর্বোচ্চ ১৮ মাস)= মোট টাকা

উদাহরণ- ধরি, আপনার সর্বশেষ মূল বেতন ৪০,০০০ টাকা।

তাহলে ল্যাগ্রান্ট পাবেন:

৪০,০০০×১৮=৭,২০,০০০/- টাকা

এককালীন আনুতোষিক:

আনুতোষিক নির্ধারণের পদ্ধতিঃ

সূত্র: সর্বশেষ মূলবেতন x সর্বমোট চাকরির জন্য পেনশনের নির্ধারিত হার (%) ÷ ২ x আনুতোষিকের নির্ধারিত হার = মোট টাকা।

উদাহরণ- ধরি, আপনার সর্বশেষ মূল বেতন ৪০,০০০ টাকা। তাহলে

(৪০০০০×৯০%)÷২=১৮,০০০/- টাকা

বর্তমানে আনুতোষিকের নির্ধারিত হার ২৩০ টাকা।

তাহলে মোট আনুতোষিক:

১৮০০০×২৩০=৪১,৪০,০০০/- টাকা

আরো কিছু ভাতা:

উৎসব ভাতা: মূল বেতন এর সমান ( বছরে ২ টা)

বাংলা নববর্ষ ভাতা: মূল বেতনের ২০%

শ্রান্তি বিনোদন ভাতা: মূল বেতন এর সমান (৩ বছরে ১ বার)

পরিবার কল্যাণ সহকারীর পদোন্নতি

পরিবার কল্যাণ সহকারীর কাজ কি

পরিবার কল্যাণ সহকারীর বেতন কত
পরিবার কল্যাণ সহকারীর কাজ কি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *